এডিসি সানজিদাকে রংপুরে বদলি করা হয়নি

ডেস্ক এডিটর এজেড নিউজ বিডি, ঢাকা
এডিসি সানজিদাকে রংপুরে বদলি করা হয়নি
ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (এডিসি) সানজিদা আফরিন

রাজধানীর শাহবাগ থানায় নিয়ে ছাত্রলীগের দুই কেন্দ্রীয় নেতাকে মারধরের ঘটনায় আলোচিত ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (এডিসি) সানজিদা আফরিনকে বদলির খবর সঠিক নয়।

আজ বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার মো. ফারুক হোসেন।

ফারুক হোসেন বলেন, এডিসি সানজিদাকে রংপুর বদলি করার খবরের সত্যতা নেই।

তিনি বলেন, আজ পর্যন্ত এমন কোনো অর্ডার হয়নি। এডিসি সানজিদার বদলির বিষয়ে কোনো আদেশের কপি পাইনি।

সম্প্রতি রাজধানীর শাহবাগ থানায় নিয়ে ছাত্রলীগের দুই কেন্দ্রীয় নেতাকে মারধরের ঘটনায় সাময়িক বরখাস্ত হওয়া এডিসি হারুন অর রশিদকে সর্বশেষ রংপুর রেঞ্জে সংযুক্ত করা হয়। এরপর গতকাল মঙ্গলবার রাতে কয়েকটি সংবাদমাধ্যম দাবি করে, ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (এডিসি) সানজিদা আফরিনকেও রংপুরে বদলি করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, শনিবার রাতে রাজধানীর শাহবাগ থানায় ছাত্রলীগের দুই কেন্দ্রীয় নেতাকে পুলিশ নির্মমভাবে পিটিয়ে আহত করে বলে অভিযোগ ওঠে। আহত ব্যক্তিরা হলেন- ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক হল শাখার সভাপতি আনোয়ার হোসেন এবং ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় বিজ্ঞানবিষয়ক সম্পাদক ও শহীদুল্লাহ হলের সাধারণ সম্পাদক শরীফ আহমেদ।

ভুক্তভোগী ও তাদের সহপাঠীদের অভিযোগ, পুলিশের রমনা বিভাগের এডিসি হারুন অর রশিদ তাদের থানার ভেতরে নিয়ে বেড়ধক পেটান। এমনকি ছাত্রলীগ নেতা পরিচয় দেওয়ার পরও হারুনের সঙ্গে ১০-১৫ পুলিশ সদস্য মিলে তাদের পিটিয়েছেন।

ছাত্রলীগ নেতাদের মারধরের ঘটনার শুরু থেকেই এক নারী পুলিশ কর্মকর্তার নাম আলোচনায় আসে। পরে জানা যায়, তিনি ডিএমপির ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (এডিসি) সানজিদা আফরিন। সানজিদা রাষ্ট্রপতির সহকারী একান্ত সচিব (এপিএস) আজিজুল হকের স্ত্রী।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

এডিসি সানজিদাকে রংপুরে বদলি করা হয়নি

এডিসি সানজিদাকে রংপুরে বদলি করা হয়নি
ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (এডিসি) সানজিদা আফরিন

রাজধানীর শাহবাগ থানায় নিয়ে ছাত্রলীগের দুই কেন্দ্রীয় নেতাকে মারধরের ঘটনায় আলোচিত ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (এডিসি) সানজিদা আফরিনকে বদলির খবর সঠিক নয়।

আজ বুধবার (১৩ সেপ্টেম্বর) নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার মো. ফারুক হোসেন।

ফারুক হোসেন বলেন, এডিসি সানজিদাকে রংপুর বদলি করার খবরের সত্যতা নেই।

তিনি বলেন, আজ পর্যন্ত এমন কোনো অর্ডার হয়নি। এডিসি সানজিদার বদলির বিষয়ে কোনো আদেশের কপি পাইনি।

সম্প্রতি রাজধানীর শাহবাগ থানায় নিয়ে ছাত্রলীগের দুই কেন্দ্রীয় নেতাকে মারধরের ঘটনায় সাময়িক বরখাস্ত হওয়া এডিসি হারুন অর রশিদকে সর্বশেষ রংপুর রেঞ্জে সংযুক্ত করা হয়। এরপর গতকাল মঙ্গলবার রাতে কয়েকটি সংবাদমাধ্যম দাবি করে, ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (এডিসি) সানজিদা আফরিনকেও রংপুরে বদলি করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, শনিবার রাতে রাজধানীর শাহবাগ থানায় ছাত্রলীগের দুই কেন্দ্রীয় নেতাকে পুলিশ নির্মমভাবে পিটিয়ে আহত করে বলে অভিযোগ ওঠে। আহত ব্যক্তিরা হলেন- ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক হল শাখার সভাপতি আনোয়ার হোসেন এবং ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় বিজ্ঞানবিষয়ক সম্পাদক ও শহীদুল্লাহ হলের সাধারণ সম্পাদক শরীফ আহমেদ।

ভুক্তভোগী ও তাদের সহপাঠীদের অভিযোগ, পুলিশের রমনা বিভাগের এডিসি হারুন অর রশিদ তাদের থানার ভেতরে নিয়ে বেড়ধক পেটান। এমনকি ছাত্রলীগ নেতা পরিচয় দেওয়ার পরও হারুনের সঙ্গে ১০-১৫ পুলিশ সদস্য মিলে তাদের পিটিয়েছেন।

ছাত্রলীগ নেতাদের মারধরের ঘটনার শুরু থেকেই এক নারী পুলিশ কর্মকর্তার নাম আলোচনায় আসে। পরে জানা যায়, তিনি ডিএমপির ক্রাইম বিভাগের অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (এডিসি) সানজিদা আফরিন। সানজিদা রাষ্ট্রপতির সহকারী একান্ত সচিব (এপিএস) আজিজুল হকের স্ত্রী।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Download
ঠিকানা: ১৮/৩, ব্লক-এফ, রিং রোড, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭ এজেড মাল্টিমিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান। লাইসেন্স নং : TRAD/DNCC/154868/2022