বাংলাদেশ: সোমবার ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৩ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

  বাংলাদেশ: সোমবার ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৩ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি  

শেষ আপডেটঃ ১:৫২ পিএম

ঘুমের ওষুধে ভয়ানক ক্ষতি

সুস্থ থাকার জন্য পর্যাপ্ত ঘুম হওয়া জরুরি। তবে আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন যাদের রাতে ঠিকভাবে ঘুম হয় না। বিছানায় এপাশ ওপাশ করেই সারারাত কাটিয়ে দেন। মূলত সারা দিনের ক্লান্তি আর চিন্তার কারণেই তাদের ঘুমে ব্যাঘাত ঘটে।এমন সমস্যা কাটিয়ে উঠতে অনেকেই ঘুমের ওষুধের সাহায্য নেন। যা প্রথমে প্রয়োজনে খাওয়া হলেও, পরবর্তীতে আসক্তির জায়গায় পৌঁছে যায়। তখন আর ওষুধ না খেলে ঘুম আসে না। কিন্তু ঘুমের ওষুধের নানা রকমের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হতে পারে। সবার ক্ষেত্রে এক রকম না হলেও অনেকের ক্ষেত্রেই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ভয়ংকর দিকে যায়। যা ভবিষ্যতে অন্যান্য ক্ষতির আশঙ্কা বাড়িয়ে দেয়।

চলুন তবে জেনে নেয়া যাক ঘুমের ওষুধ খেলে কী কী ক্ষতি হয়-

১. সারা দিন গলা শুকিয়ে থাকে অতিরিক্ত ঘুমের ওষুধ খেলে। সময়মত ওষুধ খাওয়া বন্ধ না করলে দেখা দিতে মারাত্মক সব শারীরিক সমস্যা।

২. কোষ্ঠকাঠিন্য, পেটে ব্যথা, শরীর দূর্বল, গ্যাস্টিক খুব সাধারণ সমস্যা মনে হলেও এগুলো মারাত্মক হতে পারে। দীর্ঘদিন এমন অবস্থা চললে অন্ত্রের ক্যান্সারের আশঙ্কা বেড়ে যায়। পেটের এ ধরনের সমস্যা দেখা দিলে চিকিৎসকের পারমর্শ নিন।

৩. এভরিডে হেল্থ নামক স্বাস্থ্যসংক্রান্ত পত্রিকার একটি সমীক্ষাপত্র বলা হয়েছে, ঘুমের ওষুধে থাকা যে রাসায়নিকের কারণে ঘুম আসে, তা সকালে ঘুম ভাঙার পরেও শরীরে অনেকক্ষণ থেকে যায়। তার প্রভাব পড়ে স্মৃতিশক্তির উপর। অনেকের ক্ষেত্রে ঘুমের ওষুধের কারণে স্মৃতিশক্তি কমতে থাকে। তেমন হলে এই ধরনের ওষুধ খাওয়া বন্ধ করতে হবে।

৪. ঘুমের ওষুধ খেয়ে অনেকেই ঘুমের মধ্যে কথা বলেন। এমন হলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে ঘুমের ওষুধ ছাড়তে হবে। এ ধরনের ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় অনেকেই ঘুমের মধ্যে হাঁটেন। এমন লক্ষণ দেখলে ছাড়তে হবে ঘুমের ওষুধ।

 

যেভাবে ছাড়বেন ঘুমের ওষুধ:

চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। ওষুধ ছাড়া ঘুমোনোর চেষ্টা করুন। রোজ একই সময়ে শুতে যাওয়া, ঘুমের আগে ফোন না দেখা, চা কিংবা কফি থেকে দূরে থাকা। এমন কয়েকটি সাধারণ অভ্যাসই কাটিয়ে দিতে পারে ঘুমের সমস্যা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *