বাংলাদেশ: রবিবার ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১২ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

  বাংলাদেশ: রবিবার ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১২ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি  

শেষ আপডেটঃ ১:৫২ পিএম

ডিমে খাওয়ার ১০ টি উপকারিতা

ডিম এমন একটা খাবার যা প্রত্যেকের রান্না ঘরে সংগ্রহ থাকে। বিশেষ করে যারা শহরে থাকেন তাদের প্রতিদিনের সকালের নাস্তার টেবিলে ডিম থাকেই। ডিম অনেকের পছন্দের তালিকায় থাকলেও অনেকে মনে করেন ডিম শরীরের জন্য ক্ষতিকর। তবে ডাক্তারদের মতে বেশিরভাগ পুষ্টিকর উপাদান প্রাকৃতিক ভাবে যেসব খাবারে সবচেয়ে বেশি পাওয়া যায় তার মধ্যে অন্যতম হল ডিম। তবে অতিরিক্ত কোন কিছুই ভালো না এটা মাথায় রেখে প্রতিদিনের খাবারের তালিকায় ১ টা ডিম রাখাই যায়।

জানুন ডিম স্বাস্থ্যের জন্য কতটা উপকারী-

১. ডিমে আছে লুটেইন নামে উপাদান যা বৃদ্ধ বয়সে চোখের ক্ষতি ঠেকাতে সাহায্য করে।

২. এতে রয়েছে ভিটামিন ডি, যা পেশীকে শক্তিশালী রাখতে সাহায্য করে।

৩. ডিম এর মধ্যে রয়েছে ভিটামিন এ, যা দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে সহায়তা করে। ডিমের ক্যারোটিনয়েড ও জিয়েক্সেনথিন চোখের ছানি কমাতে সাহায্য করে।

৪. ডিমে থাকা ভিটামিন বি-১২ আমাদের গ্রহণকৃত খাবারকে শক্তিতে রূপান্তরিত করতে সাহায্য করে।

৫. ডিমের সবচেয়ে বড় গুণ হচ্ছে এটি ওজন কমাতে সাহায্য করে। গবেষণায় দেখা যায় শরীর থেকে দিনে প্রায় ৪০০ ক্যালরি কমাতে পারে সকালে একটি ডিম খাওয়াতে।

৬. একটি ডিমে রয়েছে ৬.৫ গ্রাম প্রোটিন বা ৭০-৮৫ ক্যালরি। যা রোজকার প্রোটিন এর চাহিদার অনেকটা পূরণ করে।

৭.ডিমে রয়েছে আয়রন, জিংক, ফসফরাস। যা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। আর ফসফরাস হাড় ও দাঁত মজবুত রাখে।

৮. গবেষণায় দেখা গেছে ডিম কোলেস্টেরল বাড়ায় না। দিনে একটা ডিম খেলেও আপনার লিপিড প্রোফাইল কোনো প্রভাব পড়বে না।

৯. একটি ডিমে প্রায় ৩০০ মাইক্রোগ্রাম কোলাইন থাকে। যা কার্ডিওভাস্কুলার সিস্টেম, স্নায়ু, যকৃত ও মস্তিষ্কের জন্য ভালো।

১০. চুল ও নখের মান উন্নত রাখতে নিয়মিত ডিম খাওয়া বেশ উপকারী। কারণ ডিমের মধ্যে থাকা সালফার চুল ও নখের স্বাস্থ্য ভালো রাখে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *