বাংলাদেশ: সোমবার ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৩ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

  বাংলাদেশ: সোমবার ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৩ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি  

শেষ আপডেটঃ ১:৫২ পিএম

নারীদের অর্থনৈতিক অবস্থার উপর মহামারীর প্রভাব

কোভিড ১৯ মহামারী সমগ্র বিশ্বে তোলপাড় শুরু করে দেওয়া একটি ঘটনা। এ মহামারি কারণে প্রায় অনেক রাষ্ট্রেই দেখা দিয়েছে অর্থনৈতিক মন্দা। বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম জনবহুল দেশ এবং উন্নয়নশীল তাই এ দেশে মহামারীর প্রভাব কতটা বিস্তৃত তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। অর্থনৈতিক ভাবে বিপর্যয়ে পড়েছে প্রত্যেকেই তবে নারীরা এদিকে আগিয়ে আছে। সামাজিক এ অর্থনৈতিক অবস্থান থেকে নারীরা আগে থেকেই পিছিয়ে ছিলেন এবং এখনও মুখোমুখি হতে হচ্ছে ব্যাপক অর্থনৈতিক সংকটের। হেলেন লুইস তার রচিত গ্রস্থ “Difficult Women: A Historz of Feminism in 11 Fights” এ উল্লেখ করেছেন যে ‘যেকোনো মহামারী নারী এবং পুরুষদের কে ভিন্নভাবে প্রভাবিত করে ‘। বাংলাদেশের পেক্ষাপটে মহামারীর কারনে নারীরা যে কতটা ক্ষতির শিকার হয়েছেন তা অবর্ননীয়।

বাংলাদেশের প্রধান তিনটি অর্থনৈতিক খাত : কৃষি, শিল্প এবং সেবা খাত। মহামারী এ তিনটি খাতের উপর ই বিরুপ প্রভাব ফেলেছে। দেশে রপ্তানি আয়ের প্রায় ৮০ শতাংশ আসে পোশাক শিল্প থেকে। মহামারীর কারনে পোশাক শিল্প ই সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বাংলাদেশে গার্মেন্টস শিল্পের অধীনে প্রায় ৪০০০ কারখানা রয়েছে যেখানে প্রায় ৪ মিলিয়ন শ্রমিক কাজ করে এবং যার বেশিরভাগ ই নারী। মহামারীর শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রের বড় বড় কোম্পানি গুলো বাংলাদেশে তাদের পোশাকের অর্ডার বাতিল করে এতে করে চাকরিচ্যুত হয় অনেক গার্মেন্টস শ্রমিক। এসব জায়গায় চাকরিরত অবস্থায় সংখ্যাগরিষ্ট ছিলো নারীরাই তো বেশিরভাগ নারীই তাদের হারায় এবং তাদের অর্থনৈতিক অবস্থান দরিদ্র থেকে দরিদ্রতর দিকে ধাবিত হয়। এছাড়াও প্রচুর নারী উদ্যোক্তা ও মহামারীর কারনে অর্থনৈতিক ধসের শিকার হয়েছে। মহামারীর প্রভাব প্রায় বন্ধ ই হয়ে যায় তাদের মাঝারি এবং ক্ষুদ্র ব্যাবসা। করোনা আক্রান্ত হবার ভয়ে বেশিরভাগ পরিবার গৃহপরিচারিকা ছাটাই করে দেয় এবং গৃহপরিচারিকার চাকরির সুযোগ ও কমে যায় ব্যাপকহারে। এদিক থেকে নারীরা অনেক অর্থনৈতিক সংকটে পরে যায়।এছাড়াও নারীর প্রতি সহিংসতা বহুগুণে বেড়ে গিয়েছে মহামারী পরিস্থিতিতে। তবে অপরদিকে লকডাউনের কারনে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার প্রয়োজনে মহামারী সময়কালে অনলাইন ব্যাবসা বেশ রমরমা হয়ে ওঠে। অনেক নারীরাই অনলাইনে নিজেদের ব্যাবসা শুরু করে স্বাবলম্বী হয়ে ওঠে যা একটা ভালো দিক।

ভালো প্রভাব থাকলেও মহামারী তে নারীদের উপর খারাপ প্রভাব ই বেশি। বেশিরভাগ স্বাবলম্বী নারীরা যারা চাকরিচ্যুত হয়ে নতুন ভাবে আর কিছু করতে পারেনা তাদেরকে আবারও সাবলম্বি করে তোলার জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়া উচিৎ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *