বাংলাদেশ: সোমবার ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৩ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

  বাংলাদেশ: সোমবার ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৩ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি  

শেষ আপডেটঃ ১:৫২ পিএম

পৃথিবীর প্রথম মসজিদ নির্মাণের ইতিহাস

পৃথিবীর প্রথম নির্মিত কুবা মসজিদ। কুবা মূলত একটি স্থানীয় প্রাচীন কূপের নাম। সেই থেকেই এলাকাটির এমন নামকরণ হয়। মহানবী (সা.) হিজরত করে মদিনা গিয়ে কুবা এলাকায় আবু আইয়ুব আনসারী (রা)-এর বসতবাড়িতে অবস্থান করেন। পরে মসজিদে নববির খুব কাছে স্থানীভাবে বসবাস শুরু করলেও প্রতি শনিবার মসজিদুল কিবলাতাইনে নামাজ আদায় করতেন নবী (সা.)।

দুই রাকাত নামাজ আদায়ের পর আসমানি ফরমান আসে। যাতে আল্লাহর তরফে মহানবী (সা.) কে নির্দেশ দেয়া হয় কিবলা পরিবর্তন করার জন্য। ওই অবস্থাতেই জোহরের ফরজ নামাজের ভিতর কিবলা বদল করে বায়তুল্লাহর দিকে মুখ ফিরিয়ে বাকি দুই রাকাত নামাজ আদায় করেন নবীজী (সা.)। তাঁকে অনুসরণ করে সাহাবাগণ দিক পরিবর্তন করে নেন। মদিনায় মসজিদে নববীর পর কুবা হলো দ্বিতীয় বৃহত্তম ও মর্যাদাশীল মসজিদ। এই মসজিদে একসঙ্গে ২০ হাজার মুসুল্লি নামাজ আদায় করতে পারেন।

পবিত্র মদিনা নগরীর উপকণ্ঠে অবস্থিত এই কিবলাতাইন বা কুবা মসজিদ। পবিত্র মসজিদ নববী থেকে এর দূরত্ব প্রায় ৪ কি. মি.। দ্বিতীয় হিজরিতে সাওয়াদ বিন গানাম গোত্রের লোকরা এই মসজিদটি নির্মাণ করেন। কাদামাটি ও পাথর দিয়ে প্রথম নির্মাণকাজ হাত লাগিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন মহানবী (সা.) নিজেই। মাটি, পাথর, খেজুর পাতা ও খেজুর ডাল দিয়ে তৈরি হয় এই মসজিদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *