বাংলাদেশ: শুক্রবার ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১০ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

  বাংলাদেশ: শুক্রবার ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১০ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি  

শেষ আপডেটঃ ১০:৪৭ পিএম

ব্রিটিশ জীববিজ্ঞানী জন গার্ডন

স্যার জন বার্ট্রান্ড গার্ডন একজন ব্রিটিশ জীববিজ্ঞানী। নিউক্লিয়ার স্থানান্তরজনিত গবেষণার পথিকৃৎ হিসেবেই তিনি সবচেয়ে বেশি পরিচিত। এছাড়াও তিনি ক্লোনিং প্রক্রিয়াকরণেও দক্ষতা দেখিয়েছেন। ২০০৯ সালে তিনি ল্যাস্কার পুরস্কার লাভ করেছিলেন। স্টেম সেল গবেষণায় অবদানের জন্য তিনি ২০১২ সালে যৌথভাবে চিকিৎসাবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার পান।

জন গর্ডন এটন কলেজে ভর্তি হয়েছিলেন। সেখানে জীববিজ্ঞান বিষয়ে তার অবস্থান ছিল ২৫০ জনের মধ্যে সর্বশেষ। অন্যান্য বিজ্ঞান বিষয়েও তার তেমন দক্ষতা ছিল না। একজন শিক্ষক তার প্রতিবেদন উল্লেখ করেছিলেন যে, “আমি বিশ্বাস করি যে সে বিজ্ঞানী হবার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। কিন্ত তার বর্তমান কার্যধারা অসম্ভব করে তুলেছে।”গর্ডন ঐ প্রতিবেদনকে মনে গেঁথে রাখেন।

১৯৫৮ সালে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থানকালীন সময়ে তিনি ব্যাঙের সফলতম ক্লোনিং কার্য সম্পাদন করেন। ক্লোনিংটি ছিল ব্রিগস এবং কিংয়ের ১৯৫২ সালের নিউক্লেই স্থানান্তরের বর্ধিতকরণ। গার্ডনের পরীক্ষণটি বৈজ্ঞানিক মহলে বেশ মনোযোগ আকর্ষণ করে। তার প্রদর্শিত এ পদ্ধতি নিউক্লিয়ার স্থানান্তর ও উত্তোরণে অদ্যাবধি ব্যবহৃত হয়ে আসছে। ক্লোন পরিভাষাটি বিংশ শতকের শুরুতে উদ্ভিদবিদ্যাকে নির্দেশ করতো। ১৯৬৩ সালে ব্রিটিশ জীববিদ্যাবিশারদ জে. বি. এস. হল্ডেন গার্ডনের ফলাফলকে প্রাণীজগতে ক্লোন শব্দের ব্যবহারের পথিকৃৎদের একজন হিসেবে বর্ণনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *