বাংলাদেশ: রবিবার ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১২ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

  বাংলাদেশ: রবিবার ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১২ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি  

শেষ আপডেটঃ ১:৫২ পিএম

ভবিষ্যৎ চিন্তা করে বেগম জিয়া-তারেকের বিএনপি ছাড়া উচিত

বিএনপি সাংগঠনিক ভঙ্গুরতা, নেতৃত্বের কোন্দল, অতীত অপকর্ম, প্রতিটি নির্বাচনে বাজে হারে একেবারেই জনসমর্থনহীন হয়ে পড়েছে।

উক্ত অবস্থায় বিএনপির সমর্থক ও শুভানুধ্যায়ীরা মনে করেন আগের অবস্থায় ফিরতে বিএনপির গুণগত পরিবর্তন ও পরিবর্ধন প্রয়োজন।

তাদের মতে, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া ও লন্ডনে পলাতক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের দলীয় স্বার্থেই রাজনীতি থেকে সরে যাওয়া উচিত।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, রাজনীতিতে সামঞ্জস্যপূর্ণ কর্মকৌশল প্রণয়নের চেষ্টা করলে হয়তো নিজেদের টিকিয়ে রাখতে পারবে বিএনপি। অন্যথায় দলটি করুণ পরিণতির সম্মুখীন হবে। সঠিক কোনো কর্মপরিকল্পনার অভাবে এ পরিণতির দিকেই যাচ্ছে দলটি।

তাদের মতে, বিএনপির অতীত অপকর্মের দায় বহন করতে গিয়ে আজ এ দশা। ভুল সিদ্ধান্ত ও সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে না পারার কারণে দলের অস্তিত্ব আজ হুমকির মুখে। ভুলের কারণে দলটির শীর্ষ দুই নেতা দেশের রাজনীতিতে সরাসরি অংশগ্রহণ করতে পারছেন না। বিএনপির মতো দলের জন্য অবশ্যই নেতিবাচক ফল বয়ে আনছে।

তারা বলেন, বিএনপি নিজেদের গায়ে দুর্নীতি ও অপশাসনের তকমা আজো দূর করতে পারেনি। যার ফলে মানুষ বিএনপিকে ভরসা করে না। এটির জন্য অবশ্য বিএনপির শীর্ষ নেতাদের লাগামহীন দুর্নীতি ও অদক্ষ নেতৃত্ব দায়ী।

পরিচয় গোপন রাখার শর্তে বিএনপির সিনিয়র এক নেতা বলেন, বিএনপি সাংগঠনিকভাবে স্থবির হয়ে পড়েছে। আমার মনে হয়, খালেদা জিয়া বা তারেক রহমানের গায়ে দুর্নীতি ও অপশাসনের তকমা থাকায় তাদের পাশে কেউ দাঁড়াতে চায় না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *