বাংলাদেশ: মঙ্গলবার ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৪ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি

  বাংলাদেশ: মঙ্গলবার ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৪ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি  

শেষ আপডেটঃ ১:৫২ পিএম

ভাত শরীরের জন্য কতটা উপকার

একটু স্বাস্থ্য সচেতন মানুষ মাত্রই ভাতের নাম শুনলে আঁতকে ওঠেন! তারা মনে করে থাকেন, ভাত খেলেই বুঝি ওজন বাড়তে থাকবে। আর নানারকম অসুখ হলে তো কথাই নেই, সোজা দোষ চাপানো হয় ভাতের উপর! তাই খাবার তালিকা থেকে বাদ পড়ে যায় ভাতের নাম।

আসুন তবে জেনে নেওয়া যাক ভাত আমাদের শরীরের জন্য কতটা উপকার-

সাদা চালের ঝরঝরে যে ভাত খেয়ে আমরা অভ্যস্ত, তা মেশিনে কেটেছেঁটে অনেকটা বাদ দেয়ার ফলে নিশ্চিতভাবেই পুষ্টিগুণ হারায় বেশ খানিকটা। কিন্তু আবার বাইরের আস্তরণ বাদ দেওয়ার ফলেই তা হজম করা সহজ হয়ে যায়। যারা পেটের সমস্যায় ভুগছেন, তাদের জন্য সবচেয়ে ভালো সেদ্ধ চাল। মাড় বাদ দিয়ে ভাত খাবেন। ভাতের ফাইবার পেট ভরিয়ে রাখবে, কোষ্ঠকাঠিন্যও সেরে যেতে পারে।

ভাতের কমপ্লেক্স কার্বোহাইড্রেট ভাঙতে অনেক বেশি সময় লাগে আপনার শরীরের, তাই যারা ওজন বাড়ার ভয়ে ভাত থেকে দূরে থাকছেন, তাদের দুশ্চিন্তা নেহাতই অমূলক। বরং ভাতে যে বাড়তি পানি থাকে, তা আমাদের আর্দ্র আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার জন্য একান্ত প্রয়োজনীয়।

ভাতের গ্লাইসেমিক ইনডেক্স একটু বেশি, আর ঠিক এ কারণেই বাঙালিরা সনাতন কাল থেকেই ভাতের সঙ্গে নানা ধরনের শাক-সবজি, ডাল, মাছ ইত্যাদি খেতে অভ্যস্ত। লাল চালের ভাতে ভিটামিন ও মিনারেলের পরিমাণ বেশি। তবে লাল বা কালো চাল হজমের ক্ষেত্রে একটু সমস্যা হতে পারে।

আপনি যদি আপনার আদর্শ খাবার হিসেবে ভাত বেছে নেন তাহলে আপনার হার্ট ভালো থাকবে। আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশনের মতে, ভাত রক্তের কোলেস্টেরলের মাত্রাকে নিয়ন্ত্রণ করে এবং হৃদরোগ এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি আরও কমিয়ে দেয়।

পান্তা ভাতে থাকা পুষ্টিকর পদার্থগুলো শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বা ইমিউনিটিকে শক্তিশালী করে। দেহের রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা বাড়াতে সাহায্য করে আয়রন যেটা পান্তা ভাতে প্রচুর পরিমাণে পাওয়া যায়। শরীরে হাড়গুলোকে শক্ত রাখে ক্যালসিয়াম। আবার পান্তা ভাত শরীর ও ঠান্ডা করে।
উপরোক্ত আলোচনা থেকে নিশ্চই বুঝতে পেরেছেন ভাত আমাদের সুস্থতার জন্য কতটা উপকারী। তবে আর চিন্তা কি? যারা ভাত খেতে ভয় পান তারা শরীরের উপকারের জন্য প্রতিদিন পরিমাণমত ভাত খান, সুস্থ থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *