- AZnewsbd - https://aznewsbd.com -

রাতে মুচলেকা, ভোরে ১৩ বছরের মেয়েকে বিয়ে দিলেন বাবা

গাজীপুরের শ্রীপুরে রাতে মুচলেকা দিয়ে বাল্যবিবাহ দিবে না বলে অঙ্গীকার করলেও ভোরে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া (১৩) মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন বাবা।

বুধবার রাতে জেলার মাওনা বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

রাতে উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশি তৎপরতায় বাল্যবিবাহ বন্ধ করা হয়। পরে সেখান থেকে সবাই চলে গেলে ভোরে বাল্যবিবাহ দিয়ে বর ও কনে দুজনকেই শেরপুরে আত্মীয়ের বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাত ১০টার সময় মণ্ডপে বিয়ের আয়োজন করা হচ্ছিল। স্থানীয়রা খবর পেয়ে তা জানিয়ে দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) দপ্তরে। একই সঙ্গে বিষয়টি অবহিত করেন শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খোন্দকার ইমাম হোসেনকে। পরে ইউএনওর প্রতিনিধি ও থানার একজন উপ-পরিদর্শক (এসআই) ঘটনাস্থলে যায়। এসময় তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে কনের অভিভাবক সবাই বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। তবে এসময় বরের লোকজন আসার কথা থাকলেও তারা আসেনি। পরে কনের মা এসে তাদের সঙ্গে কথা বলেন এবং বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে বোঝানোর পর কনের পরিবার বিয়ের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসে।

বৃহস্পতিবার সকালে কনের মায়ের বরাত দিয়ে শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবদুর রাজ্জাক জানান, কনের মা বলেছেন যে তারা হতদরিদ্র। মেয়েকে রাস্তাঘাটে প্রায়ই ইভটিজিংয়ের শিকার হতে হচ্ছে। তাই মেয়ের সুরক্ষায় বিয়ের আয়োজন করেছিলেন। বাল্যবিবাহ না দিতে রাতেই মুচলেকা দিয়েছিল পরিবার। রাতে চলে আসার পর কি হয়েছে সেটা জানেন না বলে জানান তিনি।

0
0