- বাংলার খবর সব সময় - https://aznewsbd.com -

লকডাউনে ইফতারের বাজার

কঠোর লকডাউনে বেচা-বিক্রি তেমন একটা না থাকায় বাহারি পদের খাবার কমিয়ে দিয়েছেন বেশির ভাগ দোকানী। আর ঘরের বাইরে যেতে চান না অথচ মজাদার আইটেম দিয়ে ইফতার করতে চান তাদের জন্য কিছু রেস্টুরেন্ট আয়োজন করেছে হোম ডেলিভারির। বাড়ছে অনলাইনে অর্ডারের মাধ্যমে খাবার সরবরাহসহ নানা অফার।

রমজান এলে রাজধানীর ধানমণ্ডি, মোহাম্মদপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় বাহারি পদের ইফতার আইটেমের পসরা সাজিয়ে বসে খাবারের দোকানগুলো। এবার করোনা মহামারীতে সে চিত্র ভিন্ন। লকডাউনে সীমিত পরিসরে দোকান খোলা থাকলেও দিনকে দিন ক্রেতার উপস্থিতি কমছে। একান্ত বাধ্য না হলে বাইরে বেড়িয়ে কেউ ইফতার কিনছেন না।
ইফতার কিনতে আসা ক্রেতারা বলেন, ঘরে তো আর এত মজার ইফতার তৈরি হয় না। এ কারণে ইফতার নিতে আসা। বাসায় যে ইফতারগুলো রান্না করা যায় না মূলত তার জন্যই আসা।

এ বিষয়ে দোকানের মালিকরা বলেন, আগের চেয়ে কম বানিয়েছি। মানুষ ঘর থেকে আগের মতো বের হয় না। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সবকিছু বিক্রি করার চেষ্টা করছি। ক্রেতা কম থাকায় খাবারের পদেও কাটছাঁট করা হচ্ছে।

অন্যদিকে হোটেল রেস্তোরায় বসে খাবার খাওয়া বারণ থাকায় নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় হোম ডেলিভারির ব্যবস্থা রেখেছে রাজধানীর বেশ কয়েকটি রেস্টুরেন্ট। ভোজন রসিকদের নানা পদের ইফতার পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা করার ধীরে ধীরে অনলাইনে অর্ডার বাড়ছে বলেও জানান দোকান মালিকরা। লকডাউন মোকাবিলায় ক্ষতি পুষিয়ে নিতে অনলাইনে নানা অফারও দিচ্ছেন রেস্তোরাগুলো।

জিএম/এসএস

0
0