নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রী হেনস্তা, ২ শিক্ষক বরখাস্ত

ডেস্ক এডিটর এজেড নিউজ বিডি, ঢাকা
নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রী হেনস্তা, ২ শিক্ষক বরখাস্ত
ছবি: সংগৃহীত

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রী হেনস্তার ঘটনায় মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাজন সাহাকে স্থায়ী বরখাস্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক রেজুয়ান আহমেদ শুভ্রকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) দুপুরে জরুরি সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। দুই শিক্ষককে বরখাস্তের পাশাপাশি উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন তদন্ত কমিটির কার্যক্রম অব্যাহত রাখারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিন্ডিকেট।

সিন্ডিকেটের সভা শেষে দুপুরে প্রশাসনিক ভবনের সামনে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওই দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার কৃষিবিদ ড. হুমায়ুন কবীর।

তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮৪তম বিশেষ সিন্ডিকেট সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা বিভাগের উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাজন সাহাকে চূড়ান্তভাবে বরখাস্ত এবং বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক রেজুয়ান আহমেদ শুভ্রকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কর্তৃক গঠিত উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন তদন্ত কমিটির কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সৌমিত্র শেখর বলেন, সিন্ডিকেট আজকের এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন তদন্ত কমিটির কাজ চলমান থাকবে। তদন্ত সাপেক্ষে সিন্ডিকেট আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।

এ ঘটনায় শিক্ষার্থীরা বলেন, এ ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানাই। এটি একটি দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

প্রসঙ্গত, মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাজন সাহার বিরুদ্ধে একই বিভাগের এক ছাত্রীকে অনৈতিক প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ায় হয়রানি এবং বিভাগীয় প্রধান রেজুয়ান আহমেদ শুভ্রর বিরুদ্ধে ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার বিষয়টি সামনে আসে। এরপর থেকেই একাধিকবার প্রশাসনিক ভবনে তালা, বিক্ষোভ ও মৌন মিছিল, মোমবাতি প্রজ্বলন, অনুষদ ভবনে তালাসহ ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে বৃহস্পতিবার জরুরি সিন্ডিকেট সভা আহ্বান করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সৌমিত্র শেখর। এ ঘটনায় গত ৬ মার্চ ৩ সদস্যের উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রী হেনস্তা, ২ শিক্ষক বরখাস্ত

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রী হেনস্তা, ২ শিক্ষক বরখাস্ত
ছবি: সংগৃহীত

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রী হেনস্তার ঘটনায় মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাজন সাহাকে স্থায়ী বরখাস্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক রেজুয়ান আহমেদ শুভ্রকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) দুপুরে জরুরি সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। দুই শিক্ষককে বরখাস্তের পাশাপাশি উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন তদন্ত কমিটির কার্যক্রম অব্যাহত রাখারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিন্ডিকেট।

সিন্ডিকেটের সভা শেষে দুপুরে প্রশাসনিক ভবনের সামনে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওই দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার কৃষিবিদ ড. হুমায়ুন কবীর।

তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮৪তম বিশেষ সিন্ডিকেট সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা বিভাগের উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাজন সাহাকে চূড়ান্তভাবে বরখাস্ত এবং বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক রেজুয়ান আহমেদ শুভ্রকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কর্তৃক গঠিত উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন তদন্ত কমিটির কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সৌমিত্র শেখর বলেন, সিন্ডিকেট আজকের এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন তদন্ত কমিটির কাজ চলমান থাকবে। তদন্ত সাপেক্ষে সিন্ডিকেট আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।

এ ঘটনায় শিক্ষার্থীরা বলেন, এ ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানাই। এটি একটি দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

প্রসঙ্গত, মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাজন সাহার বিরুদ্ধে একই বিভাগের এক ছাত্রীকে অনৈতিক প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ায় হয়রানি এবং বিভাগীয় প্রধান রেজুয়ান আহমেদ শুভ্রর বিরুদ্ধে ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার বিষয়টি সামনে আসে। এরপর থেকেই একাধিকবার প্রশাসনিক ভবনে তালা, বিক্ষোভ ও মৌন মিছিল, মোমবাতি প্রজ্বলন, অনুষদ ভবনে তালাসহ ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে বৃহস্পতিবার জরুরি সিন্ডিকেট সভা আহ্বান করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সৌমিত্র শেখর। এ ঘটনায় গত ৬ মার্চ ৩ সদস্যের উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Download
ঠিকানা: মনসুরাবাদ হাউজিং, ঢাকা-১২০৭ এজেড মাল্টিমিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।