বাবা-মায়ের পাশেই চিরনিদ্রায় খালিদ

বিনোদন ডেস্ক এজেড নিউজ বিডি, ঢাকা
বাবা-মায়ের পাশেই চিরনিদ্রায় খালিদ
ছবি: সংগৃহীত

পুরো নাম খালিদ সাইফুল্লাহ। আশি ও নব্বইয়ের দশকের দেশের ব্যান্ড সংগীতের জনপ্রিয় নাম তিনি। ছিল ‘চাইম’ নামে একটি ব্যান্ডও। গেয়েছেন অসংখ্য কালজয়ী গান। সবকিছু রেখে পৃথিবীর ম্যায়া ত্যাগ করে গোপালগঞ্জ পৌর শহরের পুরাতন কবরস্থানে বাবা-মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন তিনি।

রাজধানীর বেসরকারি একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার (১৮ মার্চ) সন্ধ্যা ৭টার দিকে মারা যান তিনি। তার প্রথম জানাজা হয় সোমবার রাত ১১টায় গ্রিন রোড জামে মসজিদে। এরপর তাকে গোপালগঞ্জ গ্রামের বাড়িতে নেওয়া হয়। সেখানেই দ্বিতীয় জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হয়।

প্রিয় শিল্পীকে শেষ বিদায় জানাতে এদিন গোপালগঞ্জে তার জানাজায় উপস্থিত হন আত্মীয়স্বজন থেকে শুরু করে আশপাশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা সাধারণ ভক্ত অনুরাগীরা। ঢাকা থেকে খালিদকে শেষ বিদায় জানাতে গোপালগঞ্জ ছুটে গেছেন প্রখ্যাত গীতিকার প্রিন্স মাহমুদ।

‘চাইম’ ব্যান্ডের এই ভোকালের বয়স হয়েছিল ৫৮ বছর। তার গাওয়া গানগুলোর মধ্যে ভীষণ জনপ্রিয়তা পায় সরলতার প্রতিমা, কোনো কারণেই ফেরানো গেল না তাকে, হয়নি যাবারও বেলা, যদি হিমালয় হয়ে দুঃখ আসে।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

বাবা-মায়ের পাশেই চিরনিদ্রায় খালিদ

বাবা-মায়ের পাশেই চিরনিদ্রায় খালিদ
ছবি: সংগৃহীত

পুরো নাম খালিদ সাইফুল্লাহ। আশি ও নব্বইয়ের দশকের দেশের ব্যান্ড সংগীতের জনপ্রিয় নাম তিনি। ছিল ‘চাইম’ নামে একটি ব্যান্ডও। গেয়েছেন অসংখ্য কালজয়ী গান। সবকিছু রেখে পৃথিবীর ম্যায়া ত্যাগ করে গোপালগঞ্জ পৌর শহরের পুরাতন কবরস্থানে বাবা-মায়ের কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন তিনি।

রাজধানীর বেসরকারি একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার (১৮ মার্চ) সন্ধ্যা ৭টার দিকে মারা যান তিনি। তার প্রথম জানাজা হয় সোমবার রাত ১১টায় গ্রিন রোড জামে মসজিদে। এরপর তাকে গোপালগঞ্জ গ্রামের বাড়িতে নেওয়া হয়। সেখানেই দ্বিতীয় জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হয়।

প্রিয় শিল্পীকে শেষ বিদায় জানাতে এদিন গোপালগঞ্জে তার জানাজায় উপস্থিত হন আত্মীয়স্বজন থেকে শুরু করে আশপাশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা সাধারণ ভক্ত অনুরাগীরা। ঢাকা থেকে খালিদকে শেষ বিদায় জানাতে গোপালগঞ্জ ছুটে গেছেন প্রখ্যাত গীতিকার প্রিন্স মাহমুদ।

‘চাইম’ ব্যান্ডের এই ভোকালের বয়স হয়েছিল ৫৮ বছর। তার গাওয়া গানগুলোর মধ্যে ভীষণ জনপ্রিয়তা পায় সরলতার প্রতিমা, কোনো কারণেই ফেরানো গেল না তাকে, হয়নি যাবারও বেলা, যদি হিমালয় হয়ে দুঃখ আসে।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Download
ঠিকানা: মনসুরাবাদ হাউজিং, ঢাকা-১২০৭ এজেড মাল্টিমিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।