চাকরিতে পদোন্নতির প্রলোভন, ৯ লাখ টাকা নিয়ে গ্রেপ্তার কবিরাজ

ডেস্ক এডিটর এজেড নিউজ বিডি, ঢাকা
চাকরিতে পদোন্নতির প্রলোভন, ৯ লাখ টাকা নিয়ে গ্রেপ্তার কবিরাজ
ছবি: সংগৃহীত

চাকরিতে পদোন্নতি ও পারিবারিক সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়ে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ৯ লাখ টাকা নিয়েছিলেন মো. হুমায়ুন কবির (৫৩)। বিষয়টি বুঝতে পেরে ভুক্তভোগী থানায় অভিযোগ করলে কথিত কবিরাজ হুমায়ুনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) দুপুরে তাকে ঢাকার আদালতে পাঠায় আশুলিয়া থানা পুলিশ। এর আগে আশুলিয়ার ডেন্ডাবর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ভণ্ড কবিরাজ হুমায়ুন কবিরের বাড়ি টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলায়। তিনি ডেন্ডাবরে আল্লাহর দান আজমিরি কবিরাজি দাওয়াখানা-২ নামে একটি দোকান খুলে স্থানীয়দের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিলেন। স্থানীয়রা সবাই তাকে “কবিরাজ” হিসেবেই চেনে।

ভুক্তভোগী শাহাব উদ্দিন ভুঁইয়া একই এলাকায় বসবাস করে একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। চাকরিতে পদোন্নতি ও পারিবারিক সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়ে কবিরাজ তার কাছ থেকে ৯ লাখ টাকা নিয়েছেন। কাজ না হওয়ায় টাকা ফেরত চাইলে উল্টো হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছিলেন তিনি।

এ ঘটনায় তিনি একটি মামলা করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অপূর্ব সাহা বলেন, প্রতারণার অভিযোগে এক ভণ্ড কবিরাজকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

চাকরিতে পদোন্নতির প্রলোভন, ৯ লাখ টাকা নিয়ে গ্রেপ্তার কবিরাজ

চাকরিতে পদোন্নতির প্রলোভন, ৯ লাখ টাকা নিয়ে গ্রেপ্তার কবিরাজ
ছবি: সংগৃহীত

চাকরিতে পদোন্নতি ও পারিবারিক সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়ে এক ব্যক্তির কাছ থেকে ৯ লাখ টাকা নিয়েছিলেন মো. হুমায়ুন কবির (৫৩)। বিষয়টি বুঝতে পেরে ভুক্তভোগী থানায় অভিযোগ করলে কথিত কবিরাজ হুমায়ুনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) দুপুরে তাকে ঢাকার আদালতে পাঠায় আশুলিয়া থানা পুলিশ। এর আগে আশুলিয়ার ডেন্ডাবর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ভণ্ড কবিরাজ হুমায়ুন কবিরের বাড়ি টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলায়। তিনি ডেন্ডাবরে আল্লাহর দান আজমিরি কবিরাজি দাওয়াখানা-২ নামে একটি দোকান খুলে স্থানীয়দের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিলেন। স্থানীয়রা সবাই তাকে “কবিরাজ” হিসেবেই চেনে।

ভুক্তভোগী শাহাব উদ্দিন ভুঁইয়া একই এলাকায় বসবাস করে একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। চাকরিতে পদোন্নতি ও পারিবারিক সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়ে কবিরাজ তার কাছ থেকে ৯ লাখ টাকা নিয়েছেন। কাজ না হওয়ায় টাকা ফেরত চাইলে উল্টো হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছিলেন তিনি।

এ ঘটনায় তিনি একটি মামলা করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অপূর্ব সাহা বলেন, প্রতারণার অভিযোগে এক ভণ্ড কবিরাজকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Download
ঠিকানা: মনসুরাবাদ হাউজিং, ঢাকা-১২০৭ এজেড মাল্টিমিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।