হাউজিংয়ের মাঠ দখল করে প্লট বানানো যাবে না : মেয়র আতিক

ন্যাশনাল ডেস্ক এজেড নিউজ বিডি, ঢাকা
হাউজিংয়ের মাঠ দখল করে প্লট বানানো যাবে না : মেয়র আতিক
মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম

কোনো হাউজিং প্রকল্পের মাঠ দখল করে প্লট বানানো যাবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

বুধবার (১৮ অক্টোবর) রাজধানীর রূপনগর এলাকার ইস্টার্ন হাউজিংয়ে বিশিষ্ট নাগরিকজনদের নিয়ে আয়োজিত সুধী সমাবেশে তিনি এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, বিভিন্ন হাউজিং কোম্পানিগুলো তাদের প্রকল্পে মাঠ দেখায়, পার্ক দেখায়, রাস্তা-ঘাট, ড্রেন বিনোদনের জায়গা দেখায়। এগুলো দেখিয়ে কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ব্যবসা করার অনুমতি নিয়ে আসে। এতো সুযোগ-সুবিধা দেখে মানুষ যখন কিনতে শুরু করে তখনই তারা মাঠটাকে প্লট করে ফেলে। খোলা জায়গাটা প্লট করে ফেলে এবং বিক্রি করে দেয়।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, যেখানে যেখানে খেলার মাঠ আছে সেগুলো অবৈধভাবে কেউ দখলে রাখলে তা উদ্ধার করা হবে। কোম্পানিগুলোর ব্যবসার জন্য সাধারণ মানুষ কষ্ট করছে।

সাধারণ মানুষ সরকারকে দোষারোপ করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, জনগণ তো জানে না এই সুবিধাগুলো হাউজিং কর্তৃপক্ষ করে দিতে বাধ্য।

মতবিনিময়ে জন্মনিবন্ধন ভোগান্তি বিষয়ে মেয়রের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, ভোগান্তি হয় বিধায় অনেকেই অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন নিতে পছন্দ করেন না। তাই ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের অধীনেই জন্ম নিবন্ধনের কাজ হবে। আগে এই জন্ম নিবন্ধনের জন্য আমাদের আঞ্চলিক কার্যালয়ে যেতে হতো, তবে এখন থেকে আর কোনো জোন অফিসে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।

নিজ ওয়ার্ড কাউন্সিলর কার্যালয়ে জন্ম নিবন্ধনের সেবা পাওয়া যাবে বলেও উল্লেখ করেন মেয়র।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

হাউজিংয়ের মাঠ দখল করে প্লট বানানো যাবে না : মেয়র আতিক

হাউজিংয়ের মাঠ দখল করে প্লট বানানো যাবে না : মেয়র আতিক
মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম

কোনো হাউজিং প্রকল্পের মাঠ দখল করে প্লট বানানো যাবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

বুধবার (১৮ অক্টোবর) রাজধানীর রূপনগর এলাকার ইস্টার্ন হাউজিংয়ে বিশিষ্ট নাগরিকজনদের নিয়ে আয়োজিত সুধী সমাবেশে তিনি এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, বিভিন্ন হাউজিং কোম্পানিগুলো তাদের প্রকল্পে মাঠ দেখায়, পার্ক দেখায়, রাস্তা-ঘাট, ড্রেন বিনোদনের জায়গা দেখায়। এগুলো দেখিয়ে কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ব্যবসা করার অনুমতি নিয়ে আসে। এতো সুযোগ-সুবিধা দেখে মানুষ যখন কিনতে শুরু করে তখনই তারা মাঠটাকে প্লট করে ফেলে। খোলা জায়গাটা প্লট করে ফেলে এবং বিক্রি করে দেয়।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, যেখানে যেখানে খেলার মাঠ আছে সেগুলো অবৈধভাবে কেউ দখলে রাখলে তা উদ্ধার করা হবে। কোম্পানিগুলোর ব্যবসার জন্য সাধারণ মানুষ কষ্ট করছে।

সাধারণ মানুষ সরকারকে দোষারোপ করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, জনগণ তো জানে না এই সুবিধাগুলো হাউজিং কর্তৃপক্ষ করে দিতে বাধ্য।

মতবিনিময়ে জন্মনিবন্ধন ভোগান্তি বিষয়ে মেয়রের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, ভোগান্তি হয় বিধায় অনেকেই অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন নিতে পছন্দ করেন না। তাই ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের অধীনেই জন্ম নিবন্ধনের কাজ হবে। আগে এই জন্ম নিবন্ধনের জন্য আমাদের আঞ্চলিক কার্যালয়ে যেতে হতো, তবে এখন থেকে আর কোনো জোন অফিসে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।

নিজ ওয়ার্ড কাউন্সিলর কার্যালয়ে জন্ম নিবন্ধনের সেবা পাওয়া যাবে বলেও উল্লেখ করেন মেয়র।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Download
ঠিকানা: মনসুরাবাদ হাউজিং, ঢাকা-১২০৭ এজেড মাল্টিমিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।