মাছ নয়, গুলশান লেকে মশার চাষ হচ্ছে: মেয়র আতিক

ডেস্ক এডিটর এজেড নিউজ বিডি, ঢাকা
মাছ নয়, গুলশান লেকে মশার চাষ হচ্ছে: মেয়র আতিক
ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, রাজধানীর গুলশান লেকে মাছ নয়, মশার চাষ হচ্ছে। তাই লেক পরিষ্কারের উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন। লেকটি রাজউকের অধীনে হলেও সিটি কর্পোরেশন নিজ দায়িত্বে পরিচ্ছন্নতার কাজ করছে।

শনিবার (১৬ মার্চ) ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন ও গুলশান সোসাইটির যৌথ উদ্যোগে গুলশান লেক পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

মেয়র বলেন, গুলশান ও বারিধারা লেক এখনো রাজউকের অধীনে আছে। তাদের চিঠি দিয়েছি, লেকগুলো ঢাকা উত্তর সিটির অধীনে দেওয়ার জন্য। কিন্তু এখনো তাদের অধীনেই রয়ে গেছে। তাদের বলেছি, লেক পরিষ্কার করার জন্য। তারা সেটাও করেনি।

তনি বলেন, গুলশান মসজিদের সামনের লেক ভয়াবহ খারাপ অবস্থা হয়ে আছে। এলাকার যত মলমূত্র সব এখানে ফেলা হচ্ছে। এটি মেনে নেয়া যায় না। এই লেকগুলোতে মাছের নয়, মশার চাষ হচ্ছে। আমি চাই, এসব লেকে ওয়াটার ট্যাক্সি চলবে। আরও আধুনিক বিভিন্ন খেলনা থাকবে, যা দিয়ে শিশুরা খেলবে। অথচ এর পানি হয়ে আছে শতভাগ দূষিত। এখানকার বাসিন্দারা এই লেক থেকে উপকৃত হচ্ছে না। এলাকায় এত মশা, তা এই লেকগুলো থেকে হচ্ছে। গুলশান এলাকার মানুষের জন্য ঈদ উপহার হিসেবে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এই লেককে পরিষ্কার করে দিচ্ছে।

বিভিন্ন জায়গা থেকে পয়ঃবর্জ্য এই লেকে এসে পড়ছে জানিয়ে আতিক বলেন, আজ থেকে এই এলাকায় অভিযান চলবে। যারা সরাসরি বর্জ্য লেকে ফেলবেন, তাদের ড্রেনে আমি কলাগাছ থেরাপি দেব। যাতে সেই বর্জ্য আবার তাদের দিকে ব্যাক করে।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মাছ নয়, গুলশান লেকে মশার চাষ হচ্ছে: মেয়র আতিক

মাছ নয়, গুলশান লেকে মশার চাষ হচ্ছে: মেয়র আতিক
ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেছেন, রাজধানীর গুলশান লেকে মাছ নয়, মশার চাষ হচ্ছে। তাই লেক পরিষ্কারের উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন। লেকটি রাজউকের অধীনে হলেও সিটি কর্পোরেশন নিজ দায়িত্বে পরিচ্ছন্নতার কাজ করছে।

শনিবার (১৬ মার্চ) ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন ও গুলশান সোসাইটির যৌথ উদ্যোগে গুলশান লেক পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

মেয়র বলেন, গুলশান ও বারিধারা লেক এখনো রাজউকের অধীনে আছে। তাদের চিঠি দিয়েছি, লেকগুলো ঢাকা উত্তর সিটির অধীনে দেওয়ার জন্য। কিন্তু এখনো তাদের অধীনেই রয়ে গেছে। তাদের বলেছি, লেক পরিষ্কার করার জন্য। তারা সেটাও করেনি।

তনি বলেন, গুলশান মসজিদের সামনের লেক ভয়াবহ খারাপ অবস্থা হয়ে আছে। এলাকার যত মলমূত্র সব এখানে ফেলা হচ্ছে। এটি মেনে নেয়া যায় না। এই লেকগুলোতে মাছের নয়, মশার চাষ হচ্ছে। আমি চাই, এসব লেকে ওয়াটার ট্যাক্সি চলবে। আরও আধুনিক বিভিন্ন খেলনা থাকবে, যা দিয়ে শিশুরা খেলবে। অথচ এর পানি হয়ে আছে শতভাগ দূষিত। এখানকার বাসিন্দারা এই লেক থেকে উপকৃত হচ্ছে না। এলাকায় এত মশা, তা এই লেকগুলো থেকে হচ্ছে। গুলশান এলাকার মানুষের জন্য ঈদ উপহার হিসেবে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন এই লেককে পরিষ্কার করে দিচ্ছে।

বিভিন্ন জায়গা থেকে পয়ঃবর্জ্য এই লেকে এসে পড়ছে জানিয়ে আতিক বলেন, আজ থেকে এই এলাকায় অভিযান চলবে। যারা সরাসরি বর্জ্য লেকে ফেলবেন, তাদের ড্রেনে আমি কলাগাছ থেরাপি দেব। যাতে সেই বর্জ্য আবার তাদের দিকে ব্যাক করে।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Download
ঠিকানা: মনসুরাবাদ হাউজিং, ঢাকা-১২০৭ এজেড মাল্টিমিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।