নির্বাচনে ট্রাম্পকে সমর্থন দেবেন না মাইক পেন্স

আন্তর্জাতিক ডেস্ক এজেড নিউজ বিডি, ঢাকা
নির্বাচনে ট্রাম্পকে সমর্থন দেবেন না মাইক পেন্স
ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স জানিয়েছেন, দেশটির আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সমর্থন করবেন না তিনি। ফক্স নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমন মন্তব্য করেছেন শীর্ষ রিপাবলিকান এই নেতা।

ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট থাকাকালে তার ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন পেন্স। প্রথমে দুজনের মাঝে সম্পর্ক ভালো থাকলেও পরবর্তীতে সম্পর্কের অবনতি হতে থাকে। বিশেষ করে ২০২০ সালের নির্বাচনে হার মেনে নিতে পারেননি ট্রাম্প। সে নির্বাচনের ফল বাতিল করতে তিনি পেন্সকে অনুরোধ করেন। পেন্স এই অনুরোধ না রাখায় তাদের মাঝে তৈরি হয় তিক্ততা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পেন্সকে আক্রমণ করে একাধিকবার পোস্টও দিয়েছেন ট্রাম্প।

পেন্স ফক্স নিউজকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ২০১৭ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত ডোনাল্ড ট্রাম্পের সরকারে কাজ করতে পেরে তিনি গর্বিত, এবং এই সরকারের ভালো ভালো কাজের অনেক নজির রয়েছে। তবে বর্তমানে তার সাথে ট্রাম্পের অনেক বিষয়েই রয়েছে মতভেদ।

২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হতে রিপাবলিকান পার্টি থেকে প্রয়োজনীয় সমর্থন জোগাড় করতে ইতিমধ্যেই সক্ষম হয়েছেন ট্রাম্প। অপরদিকে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী থেকে প্রয়োজনীয় সমর্থন পেয়েছেন বাইডেন।

পেন্স জানিয়েছেন, তিনি ট্রাম্প এবং বাইডেন কাউকেই সমর্থন করবেন না। তবে তৃতীয় কারও প্রতিও তিনি এখনো সমর্থন প্রকাশ করেননি।

যুক্তরাষ্ট্রের ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রাথমিক প্রতিযোগিতায় ছিলেন পেন্স। তবে গেল অক্টোবরে প্রার্থিতার দৌড় থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন শীর্ষ রিপাবলিকান এই নেতা।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

নির্বাচনে ট্রাম্পকে সমর্থন দেবেন না মাইক পেন্স

নির্বাচনে ট্রাম্পকে সমর্থন দেবেন না মাইক পেন্স
ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স জানিয়েছেন, দেশটির আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সমর্থন করবেন না তিনি। ফক্স নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমন মন্তব্য করেছেন শীর্ষ রিপাবলিকান এই নেতা।

ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট থাকাকালে তার ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন পেন্স। প্রথমে দুজনের মাঝে সম্পর্ক ভালো থাকলেও পরবর্তীতে সম্পর্কের অবনতি হতে থাকে। বিশেষ করে ২০২০ সালের নির্বাচনে হার মেনে নিতে পারেননি ট্রাম্প। সে নির্বাচনের ফল বাতিল করতে তিনি পেন্সকে অনুরোধ করেন। পেন্স এই অনুরোধ না রাখায় তাদের মাঝে তৈরি হয় তিক্ততা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পেন্সকে আক্রমণ করে একাধিকবার পোস্টও দিয়েছেন ট্রাম্প।

পেন্স ফক্স নিউজকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ২০১৭ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত ডোনাল্ড ট্রাম্পের সরকারে কাজ করতে পেরে তিনি গর্বিত, এবং এই সরকারের ভালো ভালো কাজের অনেক নজির রয়েছে। তবে বর্তমানে তার সাথে ট্রাম্পের অনেক বিষয়েই রয়েছে মতভেদ।

২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হতে রিপাবলিকান পার্টি থেকে প্রয়োজনীয় সমর্থন জোগাড় করতে ইতিমধ্যেই সক্ষম হয়েছেন ট্রাম্প। অপরদিকে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী থেকে প্রয়োজনীয় সমর্থন পেয়েছেন বাইডেন।

পেন্স জানিয়েছেন, তিনি ট্রাম্প এবং বাইডেন কাউকেই সমর্থন করবেন না। তবে তৃতীয় কারও প্রতিও তিনি এখনো সমর্থন প্রকাশ করেননি।

যুক্তরাষ্ট্রের ২০২৪ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রাথমিক প্রতিযোগিতায় ছিলেন পেন্স। তবে গেল অক্টোবরে প্রার্থিতার দৌড় থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন শীর্ষ রিপাবলিকান এই নেতা।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Download
ঠিকানা: মনসুরাবাদ হাউজিং, ঢাকা-১২০৭ এজেড মাল্টিমিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।