মিয়ানমারের নির্বাচন নিয়ে জান্তার নতুন বার্তা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক এজেড নিউজ বিডি, ঢাকা
মিয়ানমারের নির্বাচন নিয়ে জান্তার নতুন বার্তা
ছবি: সংগৃহীত

নির্বাচন নিয়ে নতুন বার্তা দিয়েছে মিয়ানমারের জান্তা প্রশাসন। তারা জানিয়েছে, দেশটিতে নির্বাচনের পরিকল্পনা রয়েছে। সোমবার (২৪ মার্চ) বার্তাসংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

জান্তা সরকারের প্রধান জেনারেল মিন অং হ্লেইং জানান, তাদের নির্বাচনের পরিকল্পনা রয়েছে। তবে এজন্য শর্তারোপ করা হয়েছে। শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় থাকলেই তবে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

জেনারেল হ্লেইং জানান, দেশব্যাপী এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত নাও হতে পারে। মিয়ানমারের বেশিরভাগ অঞ্চলে বিদ্রোহীদের সঙ্গে জান্তার সংঘাত চলছে। এর মধ্যে নির্বাচন নিয়ে আগাম পরিকল্পনার কথা জানালেন তিনি।

রুশ বার্তা সংস্থা তাসের এক সাক্ষাৎকারে প্রধান জেনারেল জানান, দেশ যদি শান্ত ও স্থিতিশীল হয় তাহলে কেবল সংশ্লিষ্ট অঞ্চলগুলোতে নির্বাচনের পরিকল্পনা রয়েছে। আইন অনুযায়ী, দেশ নির্বাচন না হলেও আমরা যতটুকু পারি নির্বাচনের আয়োজন করা হবে।

সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে মিয়ানমারের জান্তা ২০২১ সালে গণতান্ত্রিক সরকার অং সান সু চিকে উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করে। এরপর থেকে সেনাবাহিনী গঠিত সরকার গত তিন বছর ধরে দেশটি শাসন করে আসছে।

ক্ষমতা গ্রহণের এক মাসের মধ্যে নির্বাচনের কথা ছিল জান্তার। তবে নানা অজুহাতে সেই কথার বাস্তবায়ন করেনি জান্তা। ফলে বর্তমানে জান্তার প্রধান জেনারেল হ্লেইং যে নির্বাচনের পূর্বাভাস দিয়েছেন তা আদৌ বাস্তবায়ন হবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে।

নির্বাচনের শর্ত হিসেবে জান্তা শান্তি ও স্থিতিশীলতার শর্তারোপ করেছে। অন্যদিকে মিয়ানমারের জান্তার সঙ্গে বিদ্রোহীদের তুমুল সংঘর্ষ রয়েছে। ফলে এমন স্থিতিশীল পরিবেশ আসবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। ক্ষমতা গ্রহণের পর সবচেয়ে বেশি চ্যালেঞ্জিং পরিস্থিতি পার করছে।

মিয়ানমারের জান্তা প্রশাসন প্রতি ছয় মাস পরপর জরুরি অবস্থার মেয়াদ বাড়িয়ে চলছে। শান্তি ও স্থিতিশীলতার বিষয়টি সামনে রেখে বারবার এ মেয়াদ বাড়ানো হচ্ছে। অন্যদিকে নির্বাচনের জন্য শান্তি ও স্থিতিশীলতার কথা বলা হয়েছে।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মিয়ানমারের নির্বাচন নিয়ে জান্তার নতুন বার্তা

মিয়ানমারের নির্বাচন নিয়ে জান্তার নতুন বার্তা
ছবি: সংগৃহীত

নির্বাচন নিয়ে নতুন বার্তা দিয়েছে মিয়ানমারের জান্তা প্রশাসন। তারা জানিয়েছে, দেশটিতে নির্বাচনের পরিকল্পনা রয়েছে। সোমবার (২৪ মার্চ) বার্তাসংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

জান্তা সরকারের প্রধান জেনারেল মিন অং হ্লেইং জানান, তাদের নির্বাচনের পরিকল্পনা রয়েছে। তবে এজন্য শর্তারোপ করা হয়েছে। শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় থাকলেই তবে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

জেনারেল হ্লেইং জানান, দেশব্যাপী এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত নাও হতে পারে। মিয়ানমারের বেশিরভাগ অঞ্চলে বিদ্রোহীদের সঙ্গে জান্তার সংঘাত চলছে। এর মধ্যে নির্বাচন নিয়ে আগাম পরিকল্পনার কথা জানালেন তিনি।

রুশ বার্তা সংস্থা তাসের এক সাক্ষাৎকারে প্রধান জেনারেল জানান, দেশ যদি শান্ত ও স্থিতিশীল হয় তাহলে কেবল সংশ্লিষ্ট অঞ্চলগুলোতে নির্বাচনের পরিকল্পনা রয়েছে। আইন অনুযায়ী, দেশ নির্বাচন না হলেও আমরা যতটুকু পারি নির্বাচনের আয়োজন করা হবে।

সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে মিয়ানমারের জান্তা ২০২১ সালে গণতান্ত্রিক সরকার অং সান সু চিকে উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করে। এরপর থেকে সেনাবাহিনী গঠিত সরকার গত তিন বছর ধরে দেশটি শাসন করে আসছে।

ক্ষমতা গ্রহণের এক মাসের মধ্যে নির্বাচনের কথা ছিল জান্তার। তবে নানা অজুহাতে সেই কথার বাস্তবায়ন করেনি জান্তা। ফলে বর্তমানে জান্তার প্রধান জেনারেল হ্লেইং যে নির্বাচনের পূর্বাভাস দিয়েছেন তা আদৌ বাস্তবায়ন হবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে।

নির্বাচনের শর্ত হিসেবে জান্তা শান্তি ও স্থিতিশীলতার শর্তারোপ করেছে। অন্যদিকে মিয়ানমারের জান্তার সঙ্গে বিদ্রোহীদের তুমুল সংঘর্ষ রয়েছে। ফলে এমন স্থিতিশীল পরিবেশ আসবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। ক্ষমতা গ্রহণের পর সবচেয়ে বেশি চ্যালেঞ্জিং পরিস্থিতি পার করছে।

মিয়ানমারের জান্তা প্রশাসন প্রতি ছয় মাস পরপর জরুরি অবস্থার মেয়াদ বাড়িয়ে চলছে। শান্তি ও স্থিতিশীলতার বিষয়টি সামনে রেখে বারবার এ মেয়াদ বাড়ানো হচ্ছে। অন্যদিকে নির্বাচনের জন্য শান্তি ও স্থিতিশীলতার কথা বলা হয়েছে।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Download
ঠিকানা: মনসুরাবাদ হাউজিং, ঢাকা-১২০৭ এজেড মাল্টিমিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।