মার্কিন শেয়ারবাজারে ট্রাম্পের ‘ট্রুথ সোশ্যাল’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক এজেড নিউজ বিডি, ঢাকা
মার্কিন শেয়ারবাজারে ট্রাম্পের ‘ট্রুথ সোশ্যাল’
ছবি: সংগৃহীত

মার্কিন শেয়ারবাজারে চমক দেখালো সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মালিকানাধীন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ট্রুথ সোশ্যাল।

গত ৩০ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো ট্রাম্পের মালিকানাধীন কোনো প্রতিষ্ঠান শেয়ারবাজারে অন্তর্ভুক্ত হলো, আর অবমুক্ত করার সঙ্গে সঙ্গে ট্রেডারদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসে প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার।

সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, ট্রাম্প মিডিয়া অ্যান্ড টেকনোলজি গ্রুপের প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার বাজারে আসার সঙ্গে সঙ্গে দাম ৫৬ শতাংশ বেড়ে ৭৮ ডলারে এসে যায়। এই পর্যায়ে ঝুঁকি এড়াতে ট্রুথ সোশ্যালের শেয়ারের বেচাবিক্রি বন্ধ করে দেওয়া হয়। কিছুক্ষণ পর আবার বেচাবিক্রি শুরু হলে এর দাম কিছুটা কমে ৭০ ডলারের আশপাশে এসে দাঁড়ায়, যা ১৬ শতাংশ দরবৃদ্ধির হারে ৫৭.৯৯ ডলারে দিন শেষ করে।

দিন শেষে দরপতনের সম্মুখীন হলেও প্রথম দিনের কেনাবেচা শেষে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে ট্রুথ সোশ্যালের মূল্যমান দাঁড়িয়েছে ১১ বিলিয়ন ডলার।

৪০ বছরেরও বেশি সময় ধরে প্রাইমারি পাবলিক অফারিং (আইপিও) নিয়ে পড়াশানা করা, ইউনিভার্সিটি অব ফ্লোরিডার ওয়ারিংটন কলেজ অব বিজনেসের ফাইন্যান্স প্রফেসর জে রিটার ট্রুথ সোশ্যালের শেয়ারের এই দরবৃদ্ধি নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন, এটি একটি খুব অস্বাভাবিক পরিস্থিতি। স্টকটির এই দরবৃদ্ধি বাজারের মৌলিকতার পরিপন্থী। তিনি বলেন এর দাম ২ ডলারের বেশি হওয়ার কথা নয়, ৫৮ ডলারের আশপাশে হওয়ার তো প্রশ্নই ওঠে না।’

শুধু ট্রাম্পের হাতেই বর্তমানে কোম্পানিটির ৭৯ মিলিয়ন শেয়ার রয়েছে দিন শেষে যার বাজার মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪.৬ বিলিয়ন ডলার।

২০২০ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজয় এবং গুজব ও উসকানিমূলক বক্তব্য প্রচারের দায়ে টুইটার (বর্তমান এক্স) ও ফেসবুক সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়। এ প্রেক্ষাপটে ২০২১ সালের অক্টোবরে ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজেই ‘ট্রুথ সোশ্যাল’ নামে নতুন একটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম চালু করেন।

ট্রাম্প নিজস্ব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম চালু করলেও, অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়। ফেসবুকে ট্রাম্পের ৩৪ মিলিয়ন, ইনস্টাগ্রামে ২৪ মিলিয়ন এবং এক্স-এ ৮৭ মিলিয়নেরও বেশি ফলোয়ার রয়েছে।

এদিকে, পাবলিক কোম্পানি হিসেবে যাত্রা শুরু করা ‘ট্রুথ সোশ্যাল’ মাল্টি বিলিয়ন ডলারের কোম্পানিতে পরিণত হবে, এমনটা মনে করছেন না বাজার বিশ্লেষকরা। জে রিটার বলেন, ‘কোনো প্রমাণ নেই যে, এটি একটি বড়, অত্যন্ত লাভজনক কোম্পানি হয়ে উঠবে। আমি যুক্তিসঙ্গতভাবে মনে করি যে, এর শেয়ারের দাম শেষ পর্যন্ত ২ ডলারে নেমে যাবে।’

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

মার্কিন শেয়ারবাজারে ট্রাম্পের ‘ট্রুথ সোশ্যাল’

মার্কিন শেয়ারবাজারে ট্রাম্পের ‘ট্রুথ সোশ্যাল’
ছবি: সংগৃহীত

মার্কিন শেয়ারবাজারে চমক দেখালো সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মালিকানাধীন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ট্রুথ সোশ্যাল।

গত ৩০ বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো ট্রাম্পের মালিকানাধীন কোনো প্রতিষ্ঠান শেয়ারবাজারে অন্তর্ভুক্ত হলো, আর অবমুক্ত করার সঙ্গে সঙ্গে ট্রেডারদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসে প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার।

সিএনএনের খবরে বলা হয়েছে, ট্রাম্প মিডিয়া অ্যান্ড টেকনোলজি গ্রুপের প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার বাজারে আসার সঙ্গে সঙ্গে দাম ৫৬ শতাংশ বেড়ে ৭৮ ডলারে এসে যায়। এই পর্যায়ে ঝুঁকি এড়াতে ট্রুথ সোশ্যালের শেয়ারের বেচাবিক্রি বন্ধ করে দেওয়া হয়। কিছুক্ষণ পর আবার বেচাবিক্রি শুরু হলে এর দাম কিছুটা কমে ৭০ ডলারের আশপাশে এসে দাঁড়ায়, যা ১৬ শতাংশ দরবৃদ্ধির হারে ৫৭.৯৯ ডলারে দিন শেষ করে।

দিন শেষে দরপতনের সম্মুখীন হলেও প্রথম দিনের কেনাবেচা শেষে বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে ট্রুথ সোশ্যালের মূল্যমান দাঁড়িয়েছে ১১ বিলিয়ন ডলার।

৪০ বছরেরও বেশি সময় ধরে প্রাইমারি পাবলিক অফারিং (আইপিও) নিয়ে পড়াশানা করা, ইউনিভার্সিটি অব ফ্লোরিডার ওয়ারিংটন কলেজ অব বিজনেসের ফাইন্যান্স প্রফেসর জে রিটার ট্রুথ সোশ্যালের শেয়ারের এই দরবৃদ্ধি নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন, এটি একটি খুব অস্বাভাবিক পরিস্থিতি। স্টকটির এই দরবৃদ্ধি বাজারের মৌলিকতার পরিপন্থী। তিনি বলেন এর দাম ২ ডলারের বেশি হওয়ার কথা নয়, ৫৮ ডলারের আশপাশে হওয়ার তো প্রশ্নই ওঠে না।’

শুধু ট্রাম্পের হাতেই বর্তমানে কোম্পানিটির ৭৯ মিলিয়ন শেয়ার রয়েছে দিন শেষে যার বাজার মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪.৬ বিলিয়ন ডলার।

২০২০ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে পরাজয় এবং গুজব ও উসকানিমূলক বক্তব্য প্রচারের দায়ে টুইটার (বর্তমান এক্স) ও ফেসবুক সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়। এ প্রেক্ষাপটে ২০২১ সালের অক্টোবরে ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজেই ‘ট্রুথ সোশ্যাল’ নামে নতুন একটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম চালু করেন।

ট্রাম্প নিজস্ব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম চালু করলেও, অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়। ফেসবুকে ট্রাম্পের ৩৪ মিলিয়ন, ইনস্টাগ্রামে ২৪ মিলিয়ন এবং এক্স-এ ৮৭ মিলিয়নেরও বেশি ফলোয়ার রয়েছে।

এদিকে, পাবলিক কোম্পানি হিসেবে যাত্রা শুরু করা ‘ট্রুথ সোশ্যাল’ মাল্টি বিলিয়ন ডলারের কোম্পানিতে পরিণত হবে, এমনটা মনে করছেন না বাজার বিশ্লেষকরা। জে রিটার বলেন, ‘কোনো প্রমাণ নেই যে, এটি একটি বড়, অত্যন্ত লাভজনক কোম্পানি হয়ে উঠবে। আমি যুক্তিসঙ্গতভাবে মনে করি যে, এর শেয়ারের দাম শেষ পর্যন্ত ২ ডলারে নেমে যাবে।’

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Download
ঠিকানা: মনসুরাবাদ হাউজিং, ঢাকা-১২০৭ এজেড মাল্টিমিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।