৮ ঘণ্টা পর পাটকলের আগুন নিয়ন্ত্রণে

ডেস্ক এডিটর এজেড নিউজ বিডি, ঢাকা
৮ ঘণ্টা পর পাটকলের আগুন নিয়ন্ত্রণে
ছবি: সংগৃহীত

ফায়ার সার্ভিস ও নৌ বাহিনীর ১৬টি ইউনিটের ৮ ঘণ্টার চেষ্টার পর রূপসার সালাম জুট মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। এখন চলছে ডাম্পিংয়ের কাজ।

বুধবার (৩ এপ্রিল) রাত দেড়টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক ফারুক হোসেন সিকদার।

তবে এরইমধ্যে রূপসার জাবুসায় অবস্থিত পাটকলটির চারটি গোডাউনে কাঁচা পাট ও প্রক্রিয়াজাত অবস্থায় থাকা সব পাটই পুড়ে গেছে।

এদিকে, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ধারণা করে শত কোটি টাকা ক্ষতির দাবি মালিক পক্ষের। যদিও ফায়ার সার্ভিস বলছে তদন্তের পরেই জানা যাবে মূল ঘটনা।

এর আগে, বুধবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রূপসা উপজেলার জাবুসা এলাকায় অবস্থিত সালাম জুট মিলের পাটের গুদামে আগুন লাগে।

ফায়ার সার্ভিস খুলনার সহকারী পরিচালক মো. ফারুক হোসেন সিকদার বলেন, বুধবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রূপসা উপজেলার জাবুসা এলাকায় অবস্থিত সালাম জুট মিলের পাটের গুদামে আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিস খুলনা ও বাগেরহাটের সঙ্গে নৌ বাহিনীর দুটিসহ মোট ১৬টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে যাচ্ছে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে আগুন আংশিক নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়। রাত দেড়টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে

আগুন নিয়ন্ত্রণের জন্য প্রয়োজনীয় নিজস্ব ব্যবস্থা জুট মিলটিতে না থাকায় এবং দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ায় নিয়ন্ত্রণে বেগ পেতে হচ্ছে বলে জানায় ফায়ার সার্ভিস।

আগুনে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। আগুন লাগার পর আশপাশের এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, সালাম জুট মিলে শুকনো পাট থাকায় আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে। ফলে আগুন নেভাতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে। সূতা ও রপ্তানিযোগ্য পাটজাত পণ্য মজুত ছিল। মূলত পাটের সূতা উৎপাদন করা হতো।

প্রত্যক্ষদর্শীরা আরও জানান, প্রথমে জুট মিলটির ৩ নম্বর গুদামে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে বিভিন্ন গুদামে ছড়িয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ১৪টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। তাদের সঙ্গে যোগ দেয় নৌবাহিনীর দুটি ইউনিট। এখনো আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি। আগুনে অনেক পাট পুড়ে গেছে। বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

মিল কর্তৃপক্ষ বলেছে, রূপসার জাবুসায় অবস্থিত মিলটিতে উৎপাদিত সাড়ে ৭০০ টন সূতা মজুত ছিল।পাটকলটির চারটি গোডাউনে কাঁচা পাট ও প্রক্রিয়াজাত করা থাকা সব পাটই পুড়ে গেছে। এতে শত কোটি টাকা ক্ষতির দাবি মালিকপক্ষের।

আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের সঙ্গে বাংলাদেশ নৌবাহিনীও কাজ করছে বলে জানিয়েছে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর)।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

৮ ঘণ্টা পর পাটকলের আগুন নিয়ন্ত্রণে

৮ ঘণ্টা পর পাটকলের আগুন নিয়ন্ত্রণে
ছবি: সংগৃহীত

ফায়ার সার্ভিস ও নৌ বাহিনীর ১৬টি ইউনিটের ৮ ঘণ্টার চেষ্টার পর রূপসার সালাম জুট মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। এখন চলছে ডাম্পিংয়ের কাজ।

বুধবার (৩ এপ্রিল) রাত দেড়টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক ফারুক হোসেন সিকদার।

তবে এরইমধ্যে রূপসার জাবুসায় অবস্থিত পাটকলটির চারটি গোডাউনে কাঁচা পাট ও প্রক্রিয়াজাত অবস্থায় থাকা সব পাটই পুড়ে গেছে।

এদিকে, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ধারণা করে শত কোটি টাকা ক্ষতির দাবি মালিক পক্ষের। যদিও ফায়ার সার্ভিস বলছে তদন্তের পরেই জানা যাবে মূল ঘটনা।

এর আগে, বুধবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রূপসা উপজেলার জাবুসা এলাকায় অবস্থিত সালাম জুট মিলের পাটের গুদামে আগুন লাগে।

ফায়ার সার্ভিস খুলনার সহকারী পরিচালক মো. ফারুক হোসেন সিকদার বলেন, বুধবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রূপসা উপজেলার জাবুসা এলাকায় অবস্থিত সালাম জুট মিলের পাটের গুদামে আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিস খুলনা ও বাগেরহাটের সঙ্গে নৌ বাহিনীর দুটিসহ মোট ১৬টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে যাচ্ছে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে আগুন আংশিক নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়। রাত দেড়টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে

আগুন নিয়ন্ত্রণের জন্য প্রয়োজনীয় নিজস্ব ব্যবস্থা জুট মিলটিতে না থাকায় এবং দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ায় নিয়ন্ত্রণে বেগ পেতে হচ্ছে বলে জানায় ফায়ার সার্ভিস।

আগুনে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। আগুন লাগার পর আশপাশের এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, সালাম জুট মিলে শুকনো পাট থাকায় আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে। ফলে আগুন নেভাতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে। সূতা ও রপ্তানিযোগ্য পাটজাত পণ্য মজুত ছিল। মূলত পাটের সূতা উৎপাদন করা হতো।

প্রত্যক্ষদর্শীরা আরও জানান, প্রথমে জুট মিলটির ৩ নম্বর গুদামে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে বিভিন্ন গুদামে ছড়িয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ১৪টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। তাদের সঙ্গে যোগ দেয় নৌবাহিনীর দুটি ইউনিট। এখনো আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি। আগুনে অনেক পাট পুড়ে গেছে। বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

মিল কর্তৃপক্ষ বলেছে, রূপসার জাবুসায় অবস্থিত মিলটিতে উৎপাদিত সাড়ে ৭০০ টন সূতা মজুত ছিল।পাটকলটির চারটি গোডাউনে কাঁচা পাট ও প্রক্রিয়াজাত করা থাকা সব পাটই পুড়ে গেছে। এতে শত কোটি টাকা ক্ষতির দাবি মালিকপক্ষের।

আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের সঙ্গে বাংলাদেশ নৌবাহিনীও কাজ করছে বলে জানিয়েছে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর)।

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Download
ঠিকানা: মনসুরাবাদ হাউজিং, ঢাকা-১২০৭ এজেড মাল্টিমিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।