ঝুঁকি কমাতে ‘এআই আইন’ করতে চায় সরকার

ডেস্ক এডিটর এজেড নিউজ বিডি, ঢাকা
ঝুঁকি কমাতে ‘এআই আইন’ করতে চায় সরকার
ছবি: সংগৃহীত

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সির (এআই) নেতিবাচক ব্যবহার ও ঝুঁকি কমাতে আইন করতে চাইছে সরকার। ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এ তথ্য জানিয়েছেন।

সোশ্যাল মিডিয়া মেটার প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠকে তিনি এ কথা জানান। বুধবার (২০ মার্চ) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আইসিটি টাওয়ারে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এতে অংশ নেন বাংলাদেশে মেটার পাবলিক পলিসির প্রধান রুজান সারওয়ার, প্রাইভেসি ও এআই ম্যাটার এক্সপার্ট আরিয়ান জিমেনেজ এবং কনটেন্ট বিষয়ক বিশেষজ্ঞ নয়নতারা নারায়ণ।

বৈঠকে জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, “সরকারি-বেসরকারি সেবা আরও সহজ করার লক্ষ্যে দেশে এআই পাসওয়ার্ড গভর্নমেন্ট ব্রেইন তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এআইর নেতিবাচক ব্যবহার ও ঝুঁকি কমানোর জন্য সরকার একটি এআই আইন করতে চায়। যদি মেটা চায়, এআই পলিসির খসড়া প্রণয়নে তারাও অংশ নিতে পারে।”

প্রতিমন্ত্রী বলেন, “পার্সোনাল ডাটা প্রটেকশন অ্যাক্ট (পিডিপিএ) এবং এআই পলিসি শুধু বাংলাদেশেরই নয়, এটি বৈশ্বিক ইস্যু। আমরা উদারনৈতিক ও আধুনিক আইন প্রণয়নে কাজ করছি। আমরা মেটাকে শুধু একটি কোম্পানি বিবেচনা করি না, আমরা চাই তারা প্রযুক্তিখাতে কর্মসংস্থান সৃজন ও উদ্যোক্তা তৈরিতে আরও বেশি মনোনিবেশ করবে।”

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, “বাংলাদেশ ফেসবুকের কাছে নিয়মিত তথ্য চায়। কিন্তু ২০১৬ সালে প্রথম তথ্য দেয় ফেসবুক। দেশের জনগণের সুরক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আমরা যেন কোনো তথ্য ফেসবুকের কাছে চাওয়া মাত্রই পাই, সেজন্য বাংলাদেশে একটি আঞ্চলিক অফিস স্থাপন করা জরুরি।”

 

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

ঝুঁকি কমাতে ‘এআই আইন’ করতে চায় সরকার

ঝুঁকি কমাতে ‘এআই আইন’ করতে চায় সরকার
ছবি: সংগৃহীত

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সির (এআই) নেতিবাচক ব্যবহার ও ঝুঁকি কমাতে আইন করতে চাইছে সরকার। ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এ তথ্য জানিয়েছেন।

সোশ্যাল মিডিয়া মেটার প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠকে তিনি এ কথা জানান। বুধবার (২০ মার্চ) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আইসিটি টাওয়ারে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এতে অংশ নেন বাংলাদেশে মেটার পাবলিক পলিসির প্রধান রুজান সারওয়ার, প্রাইভেসি ও এআই ম্যাটার এক্সপার্ট আরিয়ান জিমেনেজ এবং কনটেন্ট বিষয়ক বিশেষজ্ঞ নয়নতারা নারায়ণ।

বৈঠকে জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, “সরকারি-বেসরকারি সেবা আরও সহজ করার লক্ষ্যে দেশে এআই পাসওয়ার্ড গভর্নমেন্ট ব্রেইন তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এআইর নেতিবাচক ব্যবহার ও ঝুঁকি কমানোর জন্য সরকার একটি এআই আইন করতে চায়। যদি মেটা চায়, এআই পলিসির খসড়া প্রণয়নে তারাও অংশ নিতে পারে।”

প্রতিমন্ত্রী বলেন, “পার্সোনাল ডাটা প্রটেকশন অ্যাক্ট (পিডিপিএ) এবং এআই পলিসি শুধু বাংলাদেশেরই নয়, এটি বৈশ্বিক ইস্যু। আমরা উদারনৈতিক ও আধুনিক আইন প্রণয়নে কাজ করছি। আমরা মেটাকে শুধু একটি কোম্পানি বিবেচনা করি না, আমরা চাই তারা প্রযুক্তিখাতে কর্মসংস্থান সৃজন ও উদ্যোক্তা তৈরিতে আরও বেশি মনোনিবেশ করবে।”

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, “বাংলাদেশ ফেসবুকের কাছে নিয়মিত তথ্য চায়। কিন্তু ২০১৬ সালে প্রথম তথ্য দেয় ফেসবুক। দেশের জনগণের সুরক্ষা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আমরা যেন কোনো তথ্য ফেসবুকের কাছে চাওয়া মাত্রই পাই, সেজন্য বাংলাদেশে একটি আঞ্চলিক অফিস স্থাপন করা জরুরি।”

 

এজেড নিউজ বিডি ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Download
ঠিকানা: মনসুরাবাদ হাউজিং, ঢাকা-১২০৭ এজেড মাল্টিমিডিয়া লিমিটেডের একটি প্রতিষ্ঠান।